Advertisement

বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম | Permanently Off Banglalink Sim

আপনি যদি বাংলালিংক সিম ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন এবং আপনার বাংলালিংক সিমটি বন্ধ করতে চান তাহলে আজকের এই পোস্টটি আপনার জন্য। অনেক সময়ই আমাদের সিমটি বন্ধ করার প্রয়োজন হয়ে থাকে। কিন্তু হয়তো আমরা অনেকেই জানি না কিভাবে একটি সিম বন্ধ করতে হয়। আমি আজকে আপনাদের জানাবো কিভাবে আপনি বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে পারবেন। বাংলালিংক সিম বন্ধ করতে কি কি নিয়ম অনুসরণ করতে হবে তা নিচে বিস্তারিত আলোচনা করব।

বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম

একেক সিম বন্ধ করার জন্য একেক ধরনের নিয়ম থাকতে পারে। তবে যেহেতু আমি আজকে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার বিষয় নিয়ে বলছি। বাংলালিংক সিম সাধারণত দুই ভাবে বন্ধ করা যায়।

 ১. সাময়িকভাবে

 ২. স্থায়ীভাবে

যেহেতু দুই ভাবে বন্ধ করা যায়। সেহেতু দুইভাবে বন্ধ করার নিয়ম ও ভিন্ন ভিন্ন হবে। এখন আমি আপনাদেরকে এই দুই ভাবে বন্ধ করার নিয়ম দেখাবো। আপনারা চাইলে খুব সহজেই এই নিয়ম অনুসরণ করে আপনাদের বাংলালিংক সিমটি বন্ধ করতে পারবেন। আপনাদের একটা বিষয় বলে রাখা ভাল 24 ঘন্টার মধ্যে একটি সিম বন্ধ করতে পারবেন। এর মানে 24 ঘন্টা পরপর আপনারা ১টি করে সিম বন্ধ করতে পারবেন।

আরো পড়ুন…
বাংলালিংকে টাকা দেখার কোড

সাময়িকভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম

আপনি যদি আপনার বাংলালিংক সিমটি সাময়িকভাবে বন্ধ করতে চান তাহলে আপনি সঠিক জায়গায় এসেছেন । সাময়িকভাবে বন্ধ করা মানে কোন একটি সিম কিছু সময়ের জন্য বন্ধ রাখা। আপনি চাইলে খুব সহজেই বাংলালিংক সিমকে সাময়িক ভাবে বন্ধ করতে পারবেন। এর জন্য আপনাকে প্রথমে বাংলালিংকের হেল্প নাম্বার 121 এ কল করতে হবে। এরপর আপনি আপনার সিমটি বন্ধ করতে চান এই বিষয়ে তাদেরকে জানিয়ে নিশ্চিত করতে হবে।

সিম বন্ধ করার জন্য অবশ্যই তারা আপনার বাংলালিংক সিমের মালিকানা যাচাই করার জন্য কিছু তথ্য চাইবে। মালিকানা যাচাই করার জন্য সিমটি কার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তারা তাঁকে চাইবে। সিমের মালিকের নাম আইডি কার্ডের নাম্বার জন্মতারিখ ইত্যাদি এসব বিষয় যাচাই করবে। এসকল তথ্য যদি সিমের মালিকের তথ্যের সাথে মিলে যায় তাহলে বাংলালিংক কর্তৃপক্ষ আপনার বাংলালিংক সিম টি সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ করে দিবে। আবার আপনি যখন সিমটি পুনরায় সচল করতে চাইবেন তখন আপনাকে কাস্টম কেয়ারে কল করে সিমটি সচল করে নিতে হবে।

স্থায়ীভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার নিয়ম

আপনার বাংলালিংক সিমটি স্থায়ীভাবে বন্ধ করার আগে আপনাকে অবশ্যই জেনে নিতে হবে। স্থায়ীভাবে সিমটি বন্ধ করার পরে আপনি যদি কখনো চান সিমটি পুনরায় সচল করতে তাহলে আপনি পারবেন না। স্থায়ীভাবে সিমটি বন্ধ করতে নিচের নিয়ম অনুসরন করুন।

স্থায়ীভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করার জন্য সিমটি যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তাকে সঙ্গে করে তার এনআইডি কার্ড নিয়ে আপনার নিকটস্থ কোন বাংলালিংক কাস্টমার সার্ভিস সেন্টারে যেতে হবে। কারণ কাস্টম কেয়ারে কল করে সাময়িকভাবে বাংলালিংক সিম বন্ধ করা গেলেও স্থায়ীভাবে বন্ধ করা যায় না। 

কাস্টম কেয়ারের যাওয়ার পর কাস্টম কেয়ারের ম্যানেজার আপনার থেকে এনআইডি কার্ড চাইবে। আর সিম যার নামে রেজিস্ট্রেশন করা তার ফিঙ্গারপ্রিন্ট এর প্রয়োজন হবে। তাই সিমটি যদি অন্য কারো নামে রেজিস্ট্রেশন করা থাকে তাহলে অবশ্যই থাকে সাথে করে নিয়ে যাবেন। এভাবে স্থায়িভাবে আপনার বাংলালিংক সিমটি বন্ধ করতে পারবেন।

উপরের পোস্টটি যদি মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকেন তাহলে আশা করি আপনাদের সিম বন্ধ করা নিয়ে কোন সমস্যা হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *